Vitex negundo.Benefits Of Nirgundi And Its Side Effects নিশিন্দা এর উপকারিতা ও ঔষধি গুনাগুন

Nirgundi also known as the five-leaved chaste tree is used popularly in Ayurveda, Unani, Sidhdha, Homeopathy and Allopathy to treat a number of ailments. It is effective in treating headaches, venereal diseases such as syphilis, rheumatism, sprains, fever, cough, urinary problems, boils and various other ailments. Nirgundi is an effective analgesic, anti-inflammatory, anti-catarrhal and appetiser among many other attributes that benefit us to stay healthy and recover from various illness.
Nirgundi is a common ingredient in various healing sciences. Indigenous to India nirgundi is an evergreen tree that is now also found growing in Bangladesh, China, Sri Lanka, Japan and Phillipines. The ancient Romans named it the five-leaved chaste tree as it worked to reduce sexual urges and hence got linked to chastity and loyalty. The wives of the Roman soldiers used to spread the leaves of this plant on their bed for this reason when their husbands were away. The leaves, oil extracted from the leaves, fruit as well as the roots of the nirgundi tree are used for a range of health benefits. The scientific name of nirgundi is Vitex negundo.
Analgesic and Anti-inflammatory
Nirgundi works well to provide relief from pain. It reduces pain and inflammation of the muscles and the joints caused due to injury as well as internal ailments. It works well to heal fractures too. Ulcers can treated by consuming nirgundi products as well.
Improves Fertility Levels
Fertility is a major concern for many women. It not only limits a person’s health and bodily functions but also her emotions and her social conditions. It has been seen that consuming nirgundi has improved the fertility levels in many women and helped them conceive.
Treating Skin Diseases
A range of skin diseases can be treated using nirgundi. Vitiligo, leuchoderma and leprosy are treated using thus plant and its products.
Control PMS
Women often experience severe emotional, mental and physical turmoil in the days before they start menstruating. Symptoms of PMS such as anxiety, depression and fluid retention can be dealt more smoothly with nirgundi. On a regular consumption a person may also heal completely and not have any further symptoms of PMS.
Helps in Digestion
Nirgundi is an excellent remedy for digestive disorders. It helps to strengthen and improve the functioning of the digestive system. It reduces gas formation and increases appetite. The plant extracts acts effectively in stomach pain caused due to problems in digestion and swelling of the belly for the formation of gas. It cleanses the digestive system.
Ease Respiratory System
Using nirgundi as an herbal tea helps decongest the respiratory tract by removing phlegm from it. This helps open passages for air to pass improving the ventilation and normalises the breathing. This attribute of nirgundi makes it a favoured ingredient in Ayurvedic products which targets respiratory diseases such as bronchitis, asthma and pneumonia.
Treats Menopausal Symptoms
Menopause is a physically and emotionally disturbing phase for a lot of women. The body undergoes a significant change after a certain age and a woman stops menstruating. This change occurs due to the change in the hormonal balance in a woman’s body. Nirgundi promotes progesterone secretion and hence aids in the transition process and prevents its side effects such as mood swings, vaginal dryness and hot flashes.
Anti-acne
Acne is a serious concern for a lot of people. Pimples break out at any time and not only are they ugly but also painful. PMS causes acne and pimples in a lot of women. It has been seen that nirgundi has a healing effect on acne caused due to hormonal changes.
Heals Wounds
The anti-bacterial, analgesic and anti-inflammatory property of nirgundi makes it an excellent ingredient for healing wounds. It prevents the wounds from getting infected and also helps avoid bad smell. It helps reduce pain and inflammation in the affected area.
Uses of Nirgundi
Nirgundi is an extremely beneficial plant. It not only has medicinal benefits but also various others uses like keeping its dried leaves in between clothes that are stored for a long period of time prevents insects from damaging them, also burning the leaves of this plant works as an extremely effective mosquito repellent. The leaves of nirgundi are used as bio pesticides and insecticides. The chemicals used to ward away pests and insects are bad for the environmental as well as human health and it is always better to use natural alternatives to these.
Side-Effects & Allergies of Nirgundi
Nirgundi has a string of side effects and problems attached to its consumption, especially in women. Its ability to regulate hormone secretions makes it a bad option for pregnant women. It interferes with oral contraceptives and may reduce its efficacy. Nirgundi alters the functioning of the heart and should be taken under medical supervision if a person suffers from any heart ailments. There might be alterations in the menstrual flow and might also trigger allergies. It has also been seen that lactating women have faced alteration in the amount of milk production. Though it has a controversy around the nature of the change it is definite that a change does take place. The common side effects of consuming nirgundi are dry mouth, headache, nausea, stomach upset, tachycardia and urticaria. These effects have been seen to be mild, reversible and occur in a small number of cases.
নিশিন্দা
নিশিন্দা  গুড়া ৫০ গ্রাম ৯০/- টাকা, আস্ত ৮০/- টাকা।
বাজার দর অনুযায়ী দ্রব্যমূল্য পরিবর্তনশীল এবং ষ্টক থাকা সাপেক্ষে।
সকল পণ্য হালাল রুপে বাছাই করে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ধুয়ে রোদে শুকিয়ে বাজারজাত করা হয়।
বনাজী ঔষধালয়ে নুতন পণ্যের অর্ডার বিবরনমূল্য জানতে ফেসবুক     
পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন, share করে সহযোগিতা করুন প্লিজ।
ভেষজ গাছ গাছড়ার গুনাগুণ  উপকারিতা জানতে ভিজিট করুন এবং  subscribe করুন। ধন্যবাদ।
Please subscribe/like/follow for next posts, Thanks.www.natureandentertainments.com
নিশিন্দা বড় আকারের গুল্ম। ৩-৫ মিটার পর্যন্ত উঁচু হয়। ঘন শাখা-প্রশাখা থাকে। ২-৫ সে.মি. পর্যন্ত লম্বা বৃন্তবিশিষ্ট যৌগিক পত্রের ৩/৫টি পত্র থাকে। পত্রকগুলি অসমান ও বর্ষাকৃতির। ফুল নীভাভ ও বেগুনি। পেনিকল ৩০ সে.মি. পর্যন্ত লম্বা হয়। ফল ছোট ডিম্বাকৃতির ও ড্রপ।
বাংলাদেশের প্রায় সর্বত্রই এই গাছের উপস্থিতি লক্ষ করা যায়।
১। নিশিন্দার পাতাপরজীবী নাশক এবং এর যক্ষ্মা ও ক্যান্সারবিরোধী গুণ রয়েছে।
২। পাতা গরম করে যে কোনো ফোলার উপর বা মচকানোর ব্যথা ও প্রদাহ স্থানে রেখে গরম কাপড় দিয়ে বেঁধে দিয়ে দিনে ৪/৫ বার বদলাবেন। এতে দুএকদিনের মধ্যে ফোলা কমে যাবে। দেহের যে কোনো স্থানের টিউমারে নিশিন্দার পাতা বেটে গরম করে প্রতিদিন লাগালে কয়েকদিনের মধ্যে টিউমার অদৃশ্য হয়ে যাবে
৩। পাতার রস বা পাতা বেটে সরিষার তেলে পাক করে সে তেল ২/১ ফোঁটা কানে দিলে কানের রোগ আরোগ্য হয়। কানের সব ধরনের ব্যথার ক্ষতেও এটি ব্যবহার করা যায়।
৪। পাতা চূর্ণ সিকি গ্রাম পরিমাণ খেলে (পূর্ণবয়স্কদের জন্য) গুঁড়া কৃমির উপদ্রব কমে যায়)
৫। নিশিন্দা গেঁটে বাত সারায় (Ghani, 2003); গেঁটে বাত (Gout) রোগে নিশিনাদার পাঁচন মোক্ষম ঔষুধ। সঙ্গে যদি জ্বর থাকে, তবুও এতে সুফল পাওয়া যায়। ৫ গ্রাম পরিমাণ পাতা সিদ্ধ করে ছেঁকে সে পানি খেতে হয়। তবে উচ্চ রক্তচাপ থাকলে খাওয়া ঠিক নয়।
৬। মুখে বা জিহ্বায় ঘা কিুছুতেই কমছে না, এক্ষেত্রে নিশিন্দার পাতার রস দিয়ে জ্বাল দেওয়া ঘি দিনে ও রাতে দুইবার লাগালে সুফল পাওয়া যায়।
৭। নিশিন্দার পাতার রসে জ্বাল দেওয়া তেল ব্যবহারে টাক পড়া বন্ধ হয় এবং খুশকিও দূর হয়।
৮। বৃদ্ধ বয়সে রাতে প্রস্রাবের পরিমাণ বেশি হয় । অনেকের ২/৩ বার প্রস্রাব করতে হয় তখন ২/৩ রতি পরিমাণ নিশিন্দার পাতা চুর্ণ পানিসহ বিকালের দিকে একবার খেলে কয়েকদিনেই উপকার পাবেন। প্রয়োজনবোধে ২ বারও খাওয়া যায়।
৯। ৬/৭ বছর এমনকি আরো বেশি বয়সেও অনেকে রাতে বিছানায় প্রস্রাব করে। এক্ষেত্রে ২ গ্রাম পরিমাণ নিশিন্দ পাতার গুঁড়া বিকালে পানি দিয়ে খাওয়ালে ৪/৫ দিনের মধ্যে উপকার পাওয়া যায়, যদি ৫/৭ দিন ব্যবহারেও না কমে তবে সকাল -বিকাল ২ বার খাওয়াবেন। এটি ব্যবহারের কোনো পাশর্বপ্রতিক্রিয়া নেই।
১০। হঠাৎ কোনো কারণে মস্তিস্কের স্মৃতিকেন্দ্রটির কাজ বন্ধ হয়ে গেলে বা স্মৃতিভ্রম হলে রোজ ২টি নিশিন্দা পাতা ঘিয়ে ভেজে খেলে স্মৃতিশক্তি ফিরে আসবে।
১১। পাতার জলীয় নির্যাস জ্বর নিবারক হিসেবে কাজ করে। বমি ও অতিরিক্ত তৃষ্ণা সমন্বিত জ্বরের চিকিৎসায় এর ফুল ব্যবহার হয়, মূলও জ্বর নিবারক হিসেবে কাজ করে।
১২। অনিয়মিত ও স্বল্প ঋতুস্রাবে ফলের নির্যাস ব্যবহার করা হয়।
১৩। জামাকাপড় ও বই পোকার উপদ্রব থেকে রক্ষার জন্য নিশিন্দার শুকনো পাতা ব্যবহার করা যায়। ধূপের সাথে এর শুকনো পাতা ব্যবহার করলে মশা দূর হয়।
১৪। যে কোনা গলা ব্যথায় নিশিন্দার পাতা সিদ্ধ পানিতে গরম অবস্থায় ১৫০ থেকে ২০০ মিগ্রা. ফিটকিরি মিশিয়ে ৫/৭ মিনিট মুখে রেখে কুলি (Gargle) করলে গলা ব্যথা কমে যায়
১৫। তিল তেলের সাথ দ্বিগুণ পরিমাণ নিশিন্দার পাতার রস জ্বাল দিয়ে লাগালে চুলকানি কমে যায়।
১৬। নিশিন্দার মূল মায়েদের বুকের দুধ বাড়াতে হরমোনের নিঃসরণ বাড়ায়
অন্যান্য ব্যবহার
নিশিন্দা কাঠ ধূসর ও সাদা এবঙ শক্ত, ওজন ৬৭৩ কেজি/গনমিটার। নির্মাণ কাজ ও জ্বালনি হিসেবে ব্যবহার হয়। ছাই থেকে রং তৈরি হয়।

মরিয়ম ফুল, চন্দন গুড়া, রিঠা পাউডার, শিকাকাই, ত্রিফলা,
             জটামানসী, পুনর্ণবা, ত্বীন ফল, পিংক সল্ট, ব্রাঊন সুগার কারী পাতাসহ দুষ্প্রাপ্য ভেষজ এবং
                    যাবতীয় বাদাম মসলা আস্ত/গুড়ার জন্য পরিদর্শন করুন
          গাওয়া ঘি, মধু সরিষার তৈল! ভেজালে মূল্য ফেরত
      বাড়ী#২৮,  রোড#,  ব্লক#এফ,  বনশ্রী, ঢাকা
             ফোন: ০১৬২০১২০৮১৭ 






Newer Posts Newer Posts Older Posts Older Posts

Comments

Post a Comment